আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
ডিএসসিসিতে জলসবুজে ঢাকা প্রকল্পের চার পার্ক উদ্বোধন

রাজধানীতে চারটি খেলার মাঠের উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র সাঈদ খোকন। এগুলো হলো- আমলীগোলা খেলার মাঠ, বালুরঘাট খেলার মাঠ, শহীদনগর মিনি স্টেডিয়াম এবং মরহুম দেলোয়ার হোসেন খেলার মাঠ। ৭১৫ কোটি টাকা ব্যয়ে আমলীগোলা পার্কে ঢাকা দক্ষিণের ৩১টি পার্ক ও খেলার মাঠ আধুনিকায়নের লক্ষ্যে গৃহীত “জলসবুজে ঢাকা” প্রকল্পের আওতায় রোববার (৫ নভেম্বর) বিকেলে এগুলো উদ্ধোধন করেন সাঈদ খোকন। একই সাথে তিনি শহীদনগর বেড়িবাঁধ সংলগ্ন এলাকায় নবনির্মিত একটি এসটিএস এর উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ৫৩ কাঠা জায়গার মধ্যে ২.২১ কোটি টাকা ব্যয়ে আমলীগোলা পার্কসহ খেলার মাঠ, ৪০ কাঠা জায়গার মধ্যে ১.৭০ কোটি টাকা ব্যয়ে বালুরঘাট খেলার মাঠ, ৬০ কাঠা জায়গার মধ্যে ১.৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে শহীদনগর মিনি স্টেডিয়াম এবং ৫০ কাঠা জায়গার মধ্যে ১.৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে মরহুম দেলোয়ার হোসেন খেলার মাঠের নির্মাণ কাজ ২০১৮ সালের জুন মাসের মধ্যে সমাপ্ত হবে।

এসব পার্ক ও খেলার মাঠে যেসব সুবিধা বিদ্যমান তা হলো- আমলীগোলা খেলার মাঠে- ফুটবল খেলার মাঠ, কমিউনিটি সেন্টারের আধুনিকায়ন, বালুরঘাট খেলার মাঠে- ফুটবল খেলার মাঠ, প্রাকৃতিক দুর্যোগের আশ্রয়কেন্দ্র : শহীদনগর মিনি স্টেডিয়াম ফুটবল খেলার মাঠ, উন্মুক্ত ব্যায়ামাগার, শিশুদের জন্য পৃথক খেলার মাঠ, সকাল-সন্ধ্যা পায়ে হাঁটার জন্য ২০০ মিঃ ওয়াকওয়ে, নাগেশ্বর, কদম, অশোক, অশ্বথ বিভিন্ন গাছ লাগানো ব্যবস্থা, ২য় ও ৩য় তলায় কমিউনিটি সেন্টার, প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের সুবিধা এবং মরহুম দেলোয়ার হোসেন খেলার মাঠে- ফুটবল খেলার মাঠ, উন্মুক্ত ব্যায়ামাগার, শিশুদের জন্য পৃথক খেলার জায়গা, সকাল- সন্ধ্যা পায়ে হাঁটার জন্য ২৭৫ মিঃ ওয়াকওয়ে, ঈদের নামাজ পড়ার ব্যবস্থা, সংলগ্ন শশ্মান ঘাটের আধুনিকায়ন এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময় আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের সুবিধা অন্তর্ভূক্ত রয়েছে।

অনুষ্ঠানে সাঈদ খোকন বলেন, “জলসবুজে ঢাকা” প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে নারী,  শিশু ও বৃদ্ধাগণ যেমন নির্মল পরিবেশে খেলাধুলা হাটাহাটি করার পাশাপাশি সুস্থ বিনোদনের সুযোগ পাবে। এছাড়া, সামাজিক অবক্ষয় রোধ হবে এ উন্নয়ন কার্যক্রম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। একই সাথে যুবসমাজও ভয়াবহ মাদকের কবল থেকে মুক্তি পাবে।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুক্তিযোদ্ধা মোশাররফ হোসেন, কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা খান মোহাম্মদ বিলাল, প্রধান প্রকৌশলী ফরাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ, স্থপতি রফিক আজম, পার্শ্ববর্তী ওয়ার্ডের কাউন্সিলরগণ, স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সম্পাদনা: আরএ/আরবি/এসএ

মন্তব্য