আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
বগুড়ায় জমি দখল করে বাড়ি স্কুল নির্মাণ

বগুড়া শহরে সুপরিকল্পিত আবাসন ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হাউজিং স্টেটের কার্যক্রম শুরু হয়। ১৯৭৩ সালে ৬০ একর জমি দখল করে শুরু হয় এই কার্যক্রম। পরিকল্পনাতে রাস্তাঘাট, মসজিদ, বিদ্যালয়সহ সব কিছুই রাখা হয়। এরই মধ্যে ৪৬০টি বাণিজ্যিক প্লট এবং ২৪টি বাণিজ্যিক প্লট ৯৯ বছরের জন্যে লিজ দেয়া হয়। লিজ গ্রহীতাদের মধ্যে এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল রাস্তা এবং জায়গা দখল করে বিদ্যালয় ও বাসাবাড়ি নির্মাণ করেছে। এছাড়া, অনেক জায়গা বেদখল হয়ে গেছে।

জানা গেছে, অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার মিলছে না। উল্টো ওই প্রভাবশালী মহল অভিযোগ করছে, অন্যের বিরুদ্ধে। সরকারি জমি যে বেদখল হচ্ছে তা স্বীকার কোরে এস্টেটের কর্মকর্তা বলছেন, তাদের সীমাবদ্ধতার কারণে উচ্ছেদ অভিযান চালানো যাচ্ছে না।

উপশহর আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি থাকাকালীন বিদ্যায়ের প্রয়োজনে নিজের টাকায় সরকারি জায়গা দখল করে ভবন নির্মাণ করেছেন বলে স্বীকার করেন রাশেদুর রহমান নামের এক ব্যক্তি। পরে তাঁর কেজি স্কুল বালিকা বিদ্যালয়ে নিয়ে এসে ওই বিদ্যালয়ের ভবনেই থাকছেন তিনি।

অবৈধভাবে হাউজিং স্টেটর জায়গা বেদখল হওয়ার কথা সাংবাদিকদের কাছে স্বীকার করেছেন উপবিভাগীয় প্রকৌশলী শান্তুনু ঘোষ সাগর। তিনি বলেন, বগুড়া হাউজিং স্টেটের ২ একর জায়গা বেদখল হয়ে গেছে। এইসব জায়গা উদ্ধারে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

সম্পাদনা: টিআর/আরএ/এসকে

মন্তব্য