আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
কোন ক্রেতা পাচ্ছেন রিহ্যাবের র‌্যাফেল ড্র’র গাড়ি

প্রতিবছরের মতো এবারো রিহ্যাব ফেয়ার ২০১৭ তে এন্ট্রি টিকিটের র‌্যাফেল ড্র’ তে রয়েছে আকর্ষণীয় পুরস্কার। এর মধ্যে প্রথম পুরস্কার ১টি প্রাইভেট কার, দ্বিতীয় পুরস্কার ১টি ১৫০ সিসি পালসার মোটরসাইকেল, তৃতীয় পুরস্কার একটি ৪০ ইঞ্চি এলইডি টেলিভিশন, ৪র্থ পুরস্কার ১টি সাড়ে ১২ সেফটি ফ্রিজ, ৫ম পুরস্কার একটি ওয়াশিং মেশিন, ৬ষ্ঠ পুরস্কার একটি ড্রিভ ফ্রিজ, ৭ম পুরস্কার একটি মোবাইল, ৮ম পুরস্কার একটি মোবাইল ফোন, ৯ম পুরস্কার মাইক্রো ওভেন ও ১০ পুরস্কার এয়ার কুলার।

পাঁচ দিনব্যাপী মেলার শেষ দিন আজ সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) রিয়েল এস্টেট এ্যান্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) আয়োজিত মেলা প্রাঙ্গণে রাত ৯টায় শতাধিক দর্শকদের সামনে এ র‌্যাফেল ড্র’ অনুষ্ঠিত হবে। হাজারো ক্রেতা ও দর্শকদের প্রশ্ন ভাগ্যবান কোন ব্যক্তি পাচ্ছেন আজকের র‌্যাফেল ড্র’র আকর্ষণীয় পুরস্কার প্রাইভেট কার।

ফেয়ারের প্রবেশ মুখে বাম পাশে প্রদর্শিত প্রাইভেট কারের নম্বর দেয়া আছে- ঢাকা মেট্রো- ও/১৯১।

রিহ্যাবের জনসংযোগ কর্মকর্তা রশিদ বাবু  আবাসন বার্তাকে জানিয়েছেন, বিজয়ীদের নাম ও টিকিট নং রিহ্যাব ওয়েব সাইটয়ে প্রচার করা হবে। বি:দ্র: পুরস্কার গ্রহণের সময় বিজয়ীকে টিকিটের সংরক্ষিত অংশটি প্রদর্শন করতে হবে।

‘স্বপ্নীল আবাসন, সবুজ দেশ লাল সবুজের বাংলাদেশ’ এই স্লোগানে গত বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ এর উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় দেশের আবাসন শিল্প খাতের সবচেয়ে বড় আয়োজন ‘রিহ্যাব ফেয়ার-২০১৭। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) রিহ্যাব আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী চলমান এই মিলনমেলা শেষ হচ্ছে আজ সোমবার। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছেন ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা।

রিহ্যাব কর্মকর্তারা আবাসন বার্তার প্রতিবেদক রাজু আহমেদকে জানিয়েছেন, এ বছর ফেয়ারে অংশ নিয়েছে ২০৫টি স্টল। এছাড়া, এবারও মেলায় দর্শনার্থীদের প্রবেশে সিঙ্গেল এবং মাল্টিপল এন্ট্রির জন্য দুই ধরনের টিকিট থাকছে। সিঙ্গেল এন্ট্রি টিকিটের মূল্য ৫০ টাকা এবং মাল্টিপল এন্ট্রি টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা। মাল্টিপল এন্ট্রি টিকিট দিয়ে একজন দর্শনার্থী মেলার সময় পাঁচবার প্রবেশ করতে পারবেন।

সম্পাদনা: আরএ/আরবি/এসকে

মন্তব্য