আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
বাসিন্দাদের সরানোর পড় লালবাগে হেলে পড়া ভবনে তালা

রাজধানীর লালবাগ এলাকায় একটি ভবন হেলে পড়েছে। রোববার (২১ জানুয়ারি) বেলা আড়াইটার দিকে লালবাগের ২/ই আরএনডি রোডের পাঁচতলা ভবনটি পাশের একটি ভবনের দিকে ‘একটু’ হেলে পড়েছে। ভবন হেলে পড়ার খবর পেয়ে  ফায়ার সার্ভিস, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য এবং রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পড়ে ভবনের বাসিন্দাদের সরিয়ে নেওয়ার পর রাজউক ভবনটিতে তালা লাগিয়ে দিয়েছে। ওই ভবনের দশটি ইউনিটে অন্তত ৪৫ জন বসবাস করে আসছিলেন বলে লালবাগ থানার ওসি সুভাষ কুমার পাল জানিয়েছেন।

বাড়িওয়ালার নাতি এহসানুল হকের দাবি, ১৯৯২ সালে রাজউকের অনুমতি নিয়েই পাঁচতলা ভবনটি করা হয়েছিল।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের দায়িত্বরত কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান বলেন, ভবনটি পাশের ভবনের দিকে কিঞ্চিৎ হেলে পড়েছে।

রাজউকের অঞ্চল- ৫ এর অথরাইজড অফিসার আশীষ কুমার সাহা সাংবাদিকদের বলেন, প্রাথমিকভাবে তাদের মনে হয়েছে, ভবনটি ‘একটু কাত’ হয়ে গিয়েছে। দুটো বিল্ডিং পাশাপাশি লেগে আছে, এটুকু বোঝা যাচ্ছে। আপাত দৃষ্টিতে একটু হেলে আছে মনে হচ্ছে। পূর্ণাঙ্গ পরীক্ষা ছাড়া আর কিছু বলা সম্ভব না।

ঝুঁকি এড়াতে ভবনটি খালি করা হয়েছে জানিয়ে আশীষ বলেন, আমরা পুলিশের সহযোগিতায় ভবনের বাসিন্দাদের সরিয়ে নিয়ে ভবনে তালা লাগিয়ে দিচ্ছি। পরে বিস্তারিত পরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

লালবাগের ওসি সুভাষ কুমার পাল বলেন, সতর্কতা হিসাবে রাজউক কর্মকর্তারা ভবনের বাসিন্দাদের সরে যেতে বলেছেন। রাজউক আবার অনুমতি দিলে পরিস্থিতি বুঝে তখন তারা ভবনে ফিরতে পারবেন।

বাড়িওয়ালার নাতি এহসানুল হক বলেন, দুই দিন আগে ভবনটি হেলে পড়লে একজন প্রকৌশলী ডেকে তারা বিষয়টি দেখান। ওই প্রকৌশলী বলেছিলেন, তেমন কোনো সমস্যা নেই। রাজউক থেকে ‘কিছু হয়নি’ বলে অনুমোদন এনে দেবেন বলেছিলেন। তার আগেই আজ পুলিশ আর রাজউক কর্মকর্তারা বাসায় চলে এসেছে।

এহসানুল বলেন, ওই ভবন থেকে সবাই সরে গেছেন। ভবনটি বাসযোগ্য কিনা তা রাজউক ও বুয়েটের প্রকৌশলীরা পরীক্ষা করে দেখবেন। এরপর সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে- কী করতে হবে।

সম্পাদনা: আরএ/এমএন/আরবি

মন্তব্য