আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
‘ঢাকায় হোল্ডিং ট্যাক্স বকেয়া ২৩০,৭৪,৯৪,২৯৭ টাকা’

রাজধানী ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের বাড়ির মালিকদের কাছে হোল্ডিং ট্যাক্স (গৃহকর) বাবদ ২৩০ কোটি ৭৪ লাখ ৯৪ হাজার ২৯৭ টাকা বকেয়া রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, উক্ত বকেয়ার মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকার বাড়ির মালিকদের কাছে হোল্ডিং ট্যাক্স বাবদ ৭৩ কোটি ৭৪ লাখ ৯৪ হাজার ২৯৭ টাকা এবং উত্তর সিটি কর্পোরেশনের বাড়ির মালিকদের কাছে প্রায় ১৫৭ কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) ডেপুটি স্পীকার এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে শুরু হওয়া জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহর তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ তথ্য জানান।
খন্দকার মোশাররফ হোসেন জানান, ঢাকা সিটি করপোরেশনের আওতাধীন এলাকায় হোল্ডিং নম্বরবিহীন কোন বাড়ি নেই। তিনি আরও বলেন, সব বাড়িরই হোল্ডিং নম্বর আছে। তবে অনেকে হোল্ডিং ট্যাক্স দিচ্ছেন না।

সরকারি দলের অপর সদস্য দিদারুল আলমের এক প্রশ্নের জবাবেস্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী জানান, ঢাকা মশক নিবারণী দপ্তরের সাংগঠনিক কাঠামোতে ৩৯৬টি পদ রয়েছে। এর মধ্যে শূন্য ৭৪টি পদে লোক নিয়োগের ছাড়পত্র পাওয়া গেছে।

মোশাররফ হোসেন বলেন, ঢাকা মশক নিবারণী দপ্তরের মাঠ পর্যায়ের কর্মচারীরা ডিসিসি উত্তর ও দক্ষিণে প্রেষণে কর্মরত রয়েছেন। তাঁরা সিটি কর্পোরেশনের সঙ্গে যৌথভাবে মশক নিধনের কাজ করছে।

সম্পাদনা: এফএইচ/আরবি/এমএন

মন্তব্য