আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
চীনে মাটির নিচে রহস্যময় বিশাল গ্রাম

চীনে রহস্যময় এক গ্রাম রয়েছে। সেখানের সব বাড়ি-ঘরই রয়েছে মাটির নিচে। এই ঘরগুলো মাটি থেকে ২২-২৩ ফুট গভীরে তৈরি করা। এগুলো লম্বায় ৩৩ থেকে ৩৯ ফুট পর্যন্ত হয়ে থাকে। মাটির তলায় তৈরি এই ঘরগুলোতে তাপমাত্রা শীতকালে ১০ ডিগ্রি আর গ্রীষ্মে ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি থাকে না। চীনের হেনান প্রদেশের সানমেনশিয়ায় দেখা মিলবে অদ্ভুত এই গ্রামের। এখানে প্রায় ২০০ বছর ধরে মাটির তলাতেই বাড়ি তৈরি করে বসবাস করছেন ৩ হাজার মানুষ।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, উক্ত এলাকায় মাটির তলায় এমন অন্তত হাজার দশেক ঘরের সন্ধান মিলেছে। এই ধরনের ঘরগুলোকে বলা হয় ‘ইয়ায়োডং’। এই চীনা শব্দের অর্থ হল ‘গুহা ঘর’। হেনান প্রদেশের এই গুহা ঘরগুলোতে এখনো হাজার তিনেক মানুষ বসবাস করেন। জানা গেছে, এই বাসিন্দাদের অন্তত ছয় প্রজন্ম এখানে বসবাস করছেন।

ঐতিহাসিকদের মতে, হেনান প্রদেশের এই গুহা ঘরগুলোতে মানুষের বসবাস ২০০ বছরের হলেও চীনের পার্বত্য এলাকায় ৪০০০ বছর আগে, ব্রোঞ্জ যুগে এই ধরনের বাড়ি তৈরি হত। বর্তমানে এইসব গুহা ঘরগুলোতে বিদ্যুত সংযোগসহ সব আধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে।

স্থানীয়দের দাবি, ভূমিকম্পেও ক্ষতিগ্রস্ত হয় না এই ঘরগুলো। ২০১১ সাল থেকে এই গ্রামটির সংরক্ষণের ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। বর্তমানে এই ঘরগুলো পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে।

সম্পাদনা: আরএ/জেডএইচ/এমএন

মন্তব্য