আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
রাজউকের আইন অমান্য করে কাকরাইলে বাড়ি নির্মান: ভবন ধসে ঘটতে পারে প্রাণহানি

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)-এর ভবন নির্মান আইন অমান্য করে ৯৮/এ কাকরাইলে বাড়ি নির্মান করছে। হাজী কাইয়ুম মোল্লা রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের নিকট হতে দুই ইউনিটের অনুমোদন নিয়ে চার ইউনিটে নির্মান করেছে বাড়ি । এতে বাড়িটি ঝুকিপুর্ন অবস্থায় আছে। রাজধানির কাকরাইলে ‘উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল এন্ড কলেজ’-এর নিকটবর্তী হওয়ার সুবাদে স্কুলের অনেক ছাত্রছাত্রী ও তাদের অভিভাবক ওই বাড়িতে ভাড়ায় থাকেন। জানা যায়, বাড়িটি চার ইউনিট করার কারণে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ তদন্ত সাপেক্ষে ভাঙ্গার চূড়ান্ত নোটিশ প্রদান করেছে। যাতে বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানির কর্তৃপক্ষকে উক্ত বাড়িতে সার্ভিস না দেওয়ার জন্য অবগত করেছে। এছাড়াও একটি সাপ্তাহিক পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক জনস্বার্থে লিখিত অভিযোগ করেন। তিনি সচিব প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়, সচিব বিদ্যুৎ ও জালানী মন্ত্রণালয়, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ (ডিপিসি), ব্যবস্থাপনা পরিচালক ঢাকা ওয়াসা, ব্যবস্থাপনা পরিচালক তিতাস গ্যাস কারওয়ান বাজার ঢাকা বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন। এতে ঝুকিপুর্ন বাড়িটির বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানান। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই বাড়িতে প্রায় ৮০ থেকে ৯০জন ছাত্র-ছাত্রী ও তাদের অভিভাবক বসবাস করেন। প্রতিবেশিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, বাড়িটি নির্মান করেছে নিমানের রড সিমেন্ট দিয়ে, যেকোন সময় ভূমিকম্প অথবা বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটলে জানমালের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে। প্রতিবেশিরা জানায়, তদন্ত সাপেক্ষে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া অতি জরুরী। গত ১৫.১০.১৭ অথারাইজড অফিসার ৬/১ রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, বাড়ির মালিক হাজী কাইয়ুম মোল্লাকে চূড়ান্ত নোটিশ প্রদান করেছেন। এতে নিজে থেকে ব্যবস্থা প্রহণ না করলে রাজউক কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা নিবে। এছাড়া ২১/০১/২০১৮ইং তারিখ- ব্যবস্থাপনা পরিচালক ঢাকা বিদ্যুৎ বিতরণ (ডিপিডিসি) কর্তৃপক আব্দুল গণি রোড। ২২/০১/২০১৮ ব্যবস্থাপনা পরিচালক তিতাস গ্যাস, কাওরান বাজার । ২২/০১/২০১৮ইং ব্যবস্থাপনা পরিচালক ঢাকা ওয়াসা, কাওয়ান বাজার আবেদন করেন। আবেদনে ৯৪/এ কাকরাইল হাজী কাইয়ুম এর বাড়িতে উল্লেখিত সকল প্রতিষ্ঠানকে সার্ভিস না দেওয়ার জন্য অবগত করেন রাজউক কর্তৃপক্ষ। এছাড়া ওই বাড়িটির মালিক হাজী কাইয়ুম মোল্লার নামে রমনা থানাসহ সংশ্লিষ্ট সরকারি দপ্তরে মামলাসহ ২২টি অভিযোগ রয়েছে । এতোসব অভিযোগ থাকার পরেও কাইয়ুম মোল্লা প্রকাশ্যে চলাফেরা করছেন বলে জানান প্রতিবেশিরা । এসব অভিযোগের বিষয়ে বাড়ির মালিক হাজী কাইয়ুম মোল্লার সাথে যোগাযোগ করার জন্য তার ৯৮/এ কাকরাইলের বাড়িতে তাকে পাওয়া যায়নি।

মন্তব্য