আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
হঠাৎ বাড়ির দামে উল্লম্ফন, বেড়েছে ১০০ শতাংশেরও বেশী

নিউইয়র্ক শহর এমনিতেই ব্যয়বহুল নগরী হিসেবে পরিচিত। বিশেষত নগরীর ম্যানহাটন এলাকায় আবাসন খাতে বিস্তর অর্থ গুনতে হয়। এ তুলনায় ব্রঙ্কস ও ব্রুকলিনসহ আরও কয়েকটি এলাকায় খরচ বেশ কম। তারপরও আগের সেই চিত্র এখন আর নেই। গত এক বছরে এসব এলাকায় বাড়ি কিংবা ফ্ল্যাটের দাম বেড়েছে ১০০ শতাংশেরও বেশি। আবাসন খাত সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইট প্রোপার্টিশার্কের হিসাবে এই তথ্য উঠে এসেছে।
২০১৮ সালের প্রথম প্রান্তিকে নিউইয়র্ক নগরীর ৫০টি এলাকার আবাসন খাতের ওপর প্রোপার্টিশার্কের পরিচালিত জরিপের তথ্য বলছে, ব্রুকলিনে এই বছরের প্রথম প্রান্তিকে আবাসন খাতে ব্যয় বেড়েছে ১৩১ শতাংশ। আগের বছরের এই সময়ে অঞ্চলটিতে ফ্ল্যাট বা বাড়ির গড় দাম ছিল ৫ লাখ ৫৫ হাজার ডলার। এই বছর এই দাম বেড়ে ১২ লাখ ৮০ হাজার ডলারে দাঁড়িয়েছে। ব্রুকলিনের গেরিটসেন বিচ সংলগ্ন এলাকার আবাসন ব্যয়ও বেড়েছে। এই অঞ্চলে আগে ফ্ল্যাট বা বাড়ি কিনতে গড়ে খরচ হতো ২ লাখ ১৫ হাজার ডলার। এই বছরের প্রথম প্রান্তিকে এই ব্যয় বেড়ে ৩ লাখ ৯৯ হাজার ডলারে দাঁড়িয়েছে।
একইভাবে আবাসন ব্যয় বেড়েছে ব্রঙ্কসেও। আগের বছরের প্রথম প্রান্তিকে অঞ্চলটিতে ফ্ল্যাট কিংবা বাড়ির গড় দাম যেখানে ছিল ১ লাখ লাখ ৯৬ হাজার ৮০০ ডলার, এই বছর তা বেড়ে ৩ লাখ ৯৫ হাজার ৫০০ ডলারে দাঁড়িয়েছে। অর্থাৎ এক বছরের ব্যবধানে ব্রঙ্কসে আবাসন খাতে ব্যয় বেড়েছে ১০১ শতাংশ।
এ ছাড়া ওয়েস্ট-ভিলেজ এলাকায় আবাস ব্যয় বেড়েছে ৮৮ শতাংশ। আগে এই অঞ্চলে আবাসন খাতে গড়পড়তায় ১২ লাখ ৩০ হাজার ডলার খরচ হলেও এখন তা বেড়ে ২৩ লাখ ১০ হাজার ডলারে দাঁড়িয়েছে। আবাসন ব্যয় ব্যাপক বেড়েছে এমন তালিকায় রয়েছে কুইন্সের হোয়াইটস্টোন, ম্যানহাটনের ইস্ট ভিলেজ, কুইন্সের রকআওয়ে পার্ক, ব্রুকলিনের ফ্ল্যাটবুশ ও ব্রঙ্কসের কনকোর্স ভিলেজ।
এ বিষয়ে নিউইয়র্ক পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, বিভিন্ন অঞ্চলের আবাসন ব্যবসা রমরমা হয়ে উঠছে। বাড়ছে এ খাতের ব্যয়। এর অর্থ হচ্ছে নিউইয়র্কের আবাসন খাতে জাঁকজমক বাড়ছে। আগের সাধারণ মানের অ্যাপার্টমেন্ট ও ভবনগুলো দখল করছে নতুন স্টাইলিস্ট ভবন। মানুষের ক্রয়ক্ষমতাও বাড়ছে।

মন্তব্য