আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
রাজউকের উদ্যোগে বদলে যাচ্ছে উত্তরা লেকের পরিবেশ

রাজউক এর উদ্যোগে উত্তরা লেক খননের কাজ শুরু করায় বদলে যাচ্ছে লেক এবং লেকের চারপাশের পরিবেশ। এখন লেকের পানি পরিষ্কার হওয়ার কারণে নেই কোনো দূষিত বাতাস। উত্তরা লেকের প্রকল্প পরিচালক আমিনুর রহমান জানান, এই লেকটি তৈরি হওয়ার পর থেকে কখনোই আর খনন করা হয়নি তাই এর গভীরতা অনেক কমে গিয়েছিল। এ ছাড়াও চারপাশ থেকে নোংরা পানি আসায় লেকটির পানি দূষিত হচ্ছিল। এখন আমারা এমন ভাবে কাজ করছি যাতে এই লেকটি খনন করার পরে আবার দূষিত না হয়। এ জন্য পানির লাইন গুলো আলাদা করে দেওয়ার জন্য কাজ করছি।

লেকটিকে ২০ ফিট খনন করা হয়েছে। বর্ষা চলে আসায় আমাদের কাজ কিছুটা ব্যহত হচ্ছে। আমরা এমন ভাবে কাজ করছি যাতে উত্তরায় যানজোট বেশি থাকলে সাধারণ মানুষ হেঁটে এ মাথা থেকে অন্য মাথায় চলে যেতে পারে। হাটার জন্য আলাদা রাস্তার কাজ করছি। আগে পুরো লেকটিতে হাটার কোনো ব্যবস্থাই ছিল না। কিছু জায়গা দখল হয়ে গিয়েছিল, তা উদ্ধার করে সব এক সাথে করেছি। লেকে হাটার সময় ক্লান্ত হয়ে গেলে বসার জন্য বিশ্রামযোগ্য আসন তৈরি করছি। প্রায় ৫০টি পয়েন্টে খাবার পানির ব্যবস্থা থাকবে। যাতে সাধারণ মানুষ সহজে খাবার পানি পান করতে পারে। এ ছাড়াও লেকের কিছু অংশ সবুজ ঘাস লাগানো হবে এবং পুরো লেকটির পাড় ব্লক দিয়ে বাধাই করা হবে। যাতে পাড়ের মাটি সরে না যায়। উত্তরা ৫নং সেক্টরের বাসিন্দা রফিকুল ইসলাম জানান, আমি এখানে ১০ ধরে আছি, প্রায় প্রতিদিন সকালে হাটতে বের হই এই লেকের ধারে। কিন্তু পানি দূষিত থাকার কারণে হাটতে গেলে অনেক সমস্যা হত। এখন লেকটির উন্নয়ন হচ্ছে দেখে অনেক ভাল লাগছে। আশা আর দূষিত পানি থাকবে না। এখন হাটতেও কোনো সমস্যা হবে না। এখন থেকে খুব সুন্দর ভাবে সকাল বেলা হাটতে পারব।

রাজউক থেকে জানানো হয়, আমরা লেকের উন্নয়ন কাজ করলেও এর দেখভাল এর দায়িত্ব পালন করবে উত্তরার বিভিন্ন সেক্টরের কল্যান সমিতিগুলো। এই দয়িত্ব তারা খুব সুন্দর ভাবে পালন করতে পারে।

মন্তব্য