আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
নির্মাণ খাতে দক্ষ শ্রমিক তৈরিতে রিহ্যাব এর ২১ কোটি টাকার চুক্তিপত্র স্বাক্ষর

নির্মাণ খাতে দক্ষ শ্রমিক তৈরির লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের জন্য রিয়েল এস্টেট এ্যান্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) এর সাথে চুক্তিপত্র স্বাক্ষর করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন স্কিলস্ ফর এমপ্লয়মেন্ট ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (এসইআইপি)।  আজ সকালে প্রবাসী কল্যাণ ভবনে এসইআইপির কনফারেন্স রুমে এই চুক্তিপত্র স্বাক্ষর হয়। রিহ্যাব এর পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন রিহ্যাব প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল আলামিন।

চুক্তিপত্রের আওতায় রিহ্যাব প্রথম দফায় ৫টি ট্রেডে ৫ হাজার প্রশিক্ষণার্থীকে প্রশিক্ষণ দিবে। ৫ হাজার প্রশিক্ষণার্থীকে প্রশিক্ষণ দিতে এসইআইপি রিহ্যাবকে প্রায় ২১ কোটি টাকার সহায়তা দিবে। রিহ্যাব নিজস্ব ট্রেনিং ইন্সটিটিউটের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিবে প্রায় ১২শ শিক্ষার্থীকে। আর বাকি প্রশিক্ষণনার্থীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে কিশেরগঞ্জ, কুমিল্লা, মাগুরা এবং ময়মনসিংহের চারটি ইন্সটিটিউটে আউট সোর্সিং এর মাধ্যমে। আগামীতে আউট সোর্সিং ক্ষেত্রে ইন্সটিটিউটে সংখ্যা আরো বাড়বে বলে রিহ্যাব সূত্রে জানা গেছে।

অনুষ্ঠানে রিহ্যাব এর ভাইস প্রেসিডেন্ট (প্রথম) লিয়াকত আলী ভূইয়া, রিহ্যাব পরিচালক এবং রিহ্যাব ট্রেনিং ইন্সটিটিউট স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোঃ আল আমিন, রিহ্যাব পরিচালক ড. প্রকৌশলী মাসুদা সিদ্দিক রোজী, রিহ্যাব পরিচালক কামাল মাহমুদ, আসাদুর রহমান জোয়ার্দার, প্রকৌশলী মোঃ মহিউদ্দিন সিকদার, মোঃ জহির আহমেদ এবং প্রকৌশলী এন, এম, নূর কুতুবুল আলম উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

 

এসইআইপি’র পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন নির্বাহী প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) জালাল আহমেদ। রিহ্যাব এর এই মহতী কার্যক্রমে প্রশিক্ষণার্থীরা বিনামূল্যে এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের অর্থায়নে প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন। একই সাথে প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে বৃত্তি প্রদান করা হবে।

ইলেকট্রিক্যাল ইন্সটলেশন এ্যান্ড মেইনটেনেন্স, প্ল্যাম্বিং, মেশন এবং স্টিল বাইন্ডিং এ্যান্ড ফেব্রিকেশন এই ৫টি ট্রেডে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। প্রশিক্ষণের মেয়াদ হবে তিন মাস। প্রশিক্ষণ শেষে প্রতিটি শিক্ষার্থীর কর্মসংস্থানের ব্যাবস্থা করবে রিহ্যাব। আবাসন শিল্প বিকাশের জন্য দক্ষ জনশক্তি তৈরির উদ্দেশ্য নিয়ে ২০১৫ সালে যাত্রা শুরু করে রিহ্যাব ট্রেনিং ইন্সটিটিউট।

শামীম আহসান/বিশেষ প্রতিনিধি/ আবাসন বার্তা

মন্তব্য