আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
ঘোষণা
আবাসন সম্পর্কিত যেকোনো নিউজ পাঠাতে পারেন আমাদের এই মেইলে- abasonbarta2016@gmail.com
উত্তরায় সাড়ে ৬ হাজার ফ্ল্যাট হস্তান্তরে প্রস্তুত রাজউক

রাজধানীর উত্তর প্রান্তে গড়ে উঠেছে নতুন এক আবাসিক নগরী। প্রায় আড়াইশ’ ১৬ তলা ভবনের এই নগরীতে রয়েছে হাসপাতাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ আধুনিক সব সুযোগ-সুবিধা। বিস্তীর্ণ সবুজের মাঝে দু’শো একরের বেশি জমিতে পরিকল্পিতভাবে এই ভবনগুলো তৈরি করেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও গণপূর্ত বিভাগ। আবেদনকারীদের মধ্যে ফ্ল্যাট বরাদ্দ শেষ, কেউ বসবাসও শুরু করেছেন। এখন আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষা।
বিশ্বের ১১তম জনবহুল মহানগরী ঢাকা। রাজধানী কেন্দ্রিক কর্মস্থলের কারণেই মূলত ঢাকায় বসবাসকারীর সংখ্যা দিন দিনই বাড়ছে। সীমাবদ্ধ পরিসরে আবাসনের বিপুল চাহিদা মেটাতে নগরীর চারদিকে পরিকল্পিত স্থায়ী আবাসিক এলাকা গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে রাজধানীর উত্তর প্রান্তে উত্তরার ১৮ নম্বর সেক্টরে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে সারি সারি বহুলতল ভবন।
প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১০ সালে রাজধানীর উত্তরা এলাকার ২১৪ একর জমিতে ২৪০টি ১৬ তলা ভবন নির্মাণের পরিকল্পনা নেয় বর্তমান সরকার। তিন ধাপে ২০ হাজার ১৬০টি ফ্ল্যাট নির্মাণের প্রথম ধাপে ৭৯টি ভবনে তৈরি হয়েছে ৬ হাজার ৬৩৬টি ফ্ল্যাট।
লটারি করে ইতিমধ্যে আবেদনকারীদের মধ্যে ফ্ল্যাট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বসবাস শুরু করেছে কয়েকটি পরিবার।
ভূ-গর্ভস্থ লাইনের মাধ্যমে বিদ্যুত, পানি ও কেন্দ্রিয় প্লান্ট থেকে এলপিজি গ্যাস সরবরাহ এবং আধুনিক বর্জ্য ব্যবস্থাপনা রয়েছে এই প্রকল্পে। রয়েছে স্কুল, কলেজ, শপিংমল, মসজিদ, জিমনেসিয়াম, ব্যাংকসহ সব নাগরিক সুবিধা। খেলার মাঠ, পার্ক ও রাস্তার জন্য উন্মুক্ত আছে ৯৫ একরের এই প্রকল্পের ৫৫ ভাগ জমি। শিগগিরই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ভবনগুলোর অনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বলে জানান প্রকল্প পরিচালক।
নিন্ম ও মধ্যম আয়ের মানুষের জন্য গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে এসব ফ্ল্যাট নির্মাণ করেছে রাজউক।
প্রতিটি ভবনে ২০ জন ধারণ ক্ষমতার দু’টি লিফট, ২৫০ কেভিএ জেনারেটর ও ৮৫০ কেভিএ সাব-ষ্টেশন, মূল সিড়ি ছাড়াও রয়েছে ২টি অগ্নিনির্বাপন সিঁড়ি এবং মাল্টিপারপাস হল।

মন্তব্য