আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
১০টি রিয়েল এস্টেট ব্যবসার ধারণা

রিয়েল এস্টেট একটি যুগান্তকারী ব্যবসা ক্ষেত্র। এই সেক্টরটি হাউজিং শিল্পের একটি লাভজনক ও দিকনির্ভর ব্যবসা ক্ষেত্র হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। বিগত কয়েক বছর যাবৎ শিল্পটি একটি সম্ভাবনাময় ব্যবসা ক্ষেত্র হয়ে উঠেছে। তরুণ উদ্যোক্তাদের নিকট বর্তমানে এই ব্যবসার গুরুত্ব অপরিসীম। আবহমান কাল থেকেই মানুষের ঘরবাড়ির প্রয়োজনীয়তা সর্বাগ্রে। সুন্দরভাবে বসবাসের জন্য, ব্যবসা পরিচালনার জন্য উপযুক্ত একটি স্থানের প্রয়োজন হয়। যেমন, বিলাসী ঘর, ডুপ্লেক্স বাড়ি, ছোট ফ্ল্যাট, অফিস ভবন, গুদাম ইত্যাদি মানুষের নিত্যকার প্রয়োজনীয় স্থাপনা। মানুষের এই প্রয়োজনীয় চাহিদাগুলোকে প্রাধান্য দিয়ে আপনিও গড়ে তুলতে পারেন একটি রিয়েল এসেস্টট বিজনেস সেক্টর। এছাড়া বাড়ি ভাড়া, রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ ও মালামাল সরবরাহ করেও আপনি একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠা করে অর্থনৈতিক ভাবে স্বাবলম্ভী হতে পারেন। দিনে দিনে সকল পর্যায়ে উদ্যোক্তাদের নিকট এই ব্যবসাটির গুরুত্ব ও তাৎপর্য ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। দারুণ সম্ভাবনাময় এই রিয়েল এস্টেট ব্যবসাটি সম্পর্কে নিচে ১০টি ধারণা দেওয়া হল:

রিয়েল এস্টেট ডেভেলপমেন্ট বা কনসট্রাকশন
রিয়েল এস্টেট ডেভেলপমেন্ট একটি বহুমুখী ব্যবসাক্ষেত্র। ডেভেলপমেন্ট মূলত নতুন ভবন নির্মাণ, জমি ক্রয়-বিক্রয়, পুরাতন ভবন পুন:নির্মাণ ইত্যাদি কাজ গুলো করে থাকে। এই ব্যবসাটি আপনাকে অর্থনৈতিক উন্নতিতে সহায়তা করবে। এই ব্যবসাটি শুরু করতে কোন অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হয় না। কোন ব্যবসা শুরু করার আগে অবশ্যই সম্ভ্যাব্যতা যাচাই করতে হবে।

রিয়েল এস্টেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানী
রিয়েল এস্টেট ব্যবসার ক্ষেত্র হিসেবে রিয়েল এস্টেট ম্যানেজমেন্ট একটি সম্প্রসারিত ব্যবসা। নতুন ও তরুণ উদ্যোক্তাদের নিকট এই ব্যবসাটি খুবই চ্যালেজ্ঞিং ও লাভজনক একটি ব্যবসাক্ষেত্র হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে আপনি একটি কমিশনের ভিত্তিতে ক্লায়েন্টের সম্পত্তি রক্ষা করেও ব্যবসাটি পরিচালনা করতে পারেন। লাভজনক এই শিল্পে অতি সহজেই আপনি নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারেন।

রিয়েল এস্টেট মূল্যায়ন বা মূল্যনির্ধারণ সার্ভিস
প্রর্পাটির মূল্যনির্ধারণ, রিয়েল এস্টেট মূল্যায়ন, জমির মূল্যনির্ধারণ ইত্যাদি রিয়েল এস্টেট ব্যবসা সেক্টরের একটি অন্যতম ব্যবসাক্ষেত্র। এক্ষেত্রে আপনার কাজ হবে কোনো সম্পত্তি বা স্থাপনার সঠিক মূল্যমান বিশ্লেষণের মাধ্যমে গ্রাহককে সঠিকভাবে জমিটি মূল্যায়নে সহায়তা করা। ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়েই আপনার নিকটি হতে এ সেবাটি গ্রহণ করতে পারে। আপনি ইচ্ছা করলেই রিয়েল এস্টেট সেক্টরে এস্টেট মূল্যায়ক বা মূল্যনির্ধারক হিসেবে ক্যারিয়ার বিল্ডআপ করতে পারেন।

ব্লগিং
ব্যবসায়ী বা অন্যান্য কলাকুশলীদের জন্য একটি ব্লগিং সাইট তৈরী করে আপনি সেবা ও আয় শুরু করতে পারেন। উন্নয়ন ও অন্যান্য তথ্য সরবরাহ করে আপনি রিয়েল এস্টেট সাইটটি আপডেট করতে পারেন। কাস্টমার ও ক্লায়েন্টদের জন্য আপনার ব্লগে বিভিন্ন মতামত ও উপদেশ দিয়ে এই সেবাটি প্রদান করতে পারেন। যদি আপনি একজন ব্লগার হিসেবে শুরু করতে চান তাহলে ড়িৎফঢ়ৎবংং.পড়স এর মতো ফ্রী সাইট গুলোতে প্রোফাইল তৈরী করতে পারেন।

আর্কিটেকচার
যদি আপনার কোন ভবন নকশা এবং কাঠামা ডিজাইন করার মতো দক্ষতা থাকে তাহলে আপনিও এই সম্মাজনক পেশাটি শুরু করতে পারেন। প্রাথমিকভাবে আপনার কাজ হবে স্থাপনা অঙকন, ঘরের নকশা প্রণয়ন ও অন্যান্য অবকাঠামো উন্নয়ন করা।

অনলাইন মার্কেটি
এই শিল্পে ব্যবসা প্রতিষ্ঠিত করার আরেকটি পপুলার ওয়ে হলো রিয়েল এস্টেট কোম্পানী বা এজেন্টদের অনলাইন মার্কেটিং সেবা প্রদান করা। রিয়েল এস্টেট সম্পর্কে সকল আপডেট নিউজ গুলো প্রচার কওে আপনি সহজেই এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। আপনি এসইও, বিভিন্ন সোশাল মিডিয়া, ফেইসবুক গ্রুপ ইত্যাদি মাধ্যমগুলো দ¦ারা গ্রাহকদের নিকট এই সেবা পৌঁছে দিতে পারেন। অনলাইন মার্কেটিং সম্পর্কে যদি আপনার নূন্যতম কোন ধারণা থাকে তাহলে আপনি এই সেক্টওে নিজেকে দারুণভাবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন।

প্রর্পাটি স্টাইলিং
রিয়েল এস্টেট শিল্পে একটি স্মার্ট ও যুগোপযোগী ব্যবসার ধারণা প্রর্পাটি স্টাইলিং। প্রর্পাটি স্টাইলিশরা মূলত বিক্রয় বা ভাড়ার জন্য বিল্ডিং বা স্থাপনাকে প্রস্তুত করে থাকে। এটি একটি চাহিদাবহুল ব্যবসার ধারণা।

রেন্যুভেশন ও রিপেয়ার
রিয়েল এস্টেট শিল্পে রেন্যুভেশন ও রিপেয়ারিংকে মহান পেশা হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। বিগত কয়েক বছরে আপনার আশেপাশে প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও অন্যান্য আকস্মিক দূর্ঘটনায় অনেক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং বাড়িঘর ও স্থাপনা ধ্বংস হয়েছে। আপনি এসব বাড়িঘর মেরামত ও নির্মাণের কাজটি করে সহজেই জীবিকা নের্বাহ করতে পারেন। এটি একটি লাভজনক ব্যবসার ধারণা।

পার্সোনালাইজড সার্ভিস
বর্তমান ক্রমবর্ধমান ব্যবসা বাজারে পার্সোনালাইজড সার্ভিস ব্যবসাটি একটি লাভজনক ব্যবসায় পরিণত হতে পারে। আপনি গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী উপযুক্ত পরিসেবা অফার করে ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। গ্রাহকদের বাড়ির জন্য মানানসই রং এবং অন্যান্য অবকাঠামোর জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ সুবিধাগুলো নিয়ে আপনি গ্রাহককে পরামর্শ প্রদান করে এ ব্যবসাটি পরিচালনা করতে পারেন।

রিয়েল এস্টেট এজেন্সি
একটি এজেন্সি প্রতিষ্ঠা করে আপনি এটিকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করতে পারেন। মূলত এজেন্টরা ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মধ্যে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজ করে। যেসকল বিক্রেতা তাদের প্রর্পাটি বিক্রয় করতে চায় তাদের একটি তালিকা তৈরী করে, তাদের জন্য ক্রেতা খুঁজে বের করে আপনি এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

মন্তব্য