আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
ডিজিটাল উদ্যোগ আপনার ঘরেই আবাসন মেলা

দেশে মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট ব্যবহারকারী বাড়ছে। একই সঙ্গে দিন দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে অনলাইন কেনাকাটা। অনলাইনে বই, ইলেকট্রনিক পণ্য, পোশাক, গাড়ি কেনাবেচা শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে অনলাইনে ঘর বা ফ্ল্যাট বিক্রির বিষয়টিও শুরু হয়েছে। তাহলে অনলাইনে যাচাই–বাছাই করে ফ্ল্যাট, বাড়ি বা জমি কেনা হবে না কেন?

ফ্ল্যাট বা বাড়ি কেনায় বড় বিনিয়োগের বিষয় যুক্ত। কোনো ফ্ল্যাট বা বাড়ি কেনার আগে যাচাই-বাছাই করা বা সিদ্ধান্ত নেওয়ার কাজটি কিন্তু সহজ করে দিয়েছে আপনার হাতে থাকা যন্ত্র আর ইন্টারনেট। অনলাইন থেকে ফ্ল্যাট বা বাড়ি সুবিধাকে আরেকটু সহজ করে দিতেই শুরু হয়েছে ‘বার্জার–প্রথম আলো অনলাইন আবাসন মেলা’। 

নতুন আঙ্গিকের মেলা
ভাবছেন, এ আবার কেমন মেলা? আর কোথায় হচ্ছে এ মেলা? মেলায় যাওয়াও তো ঝক্কির ব্যাপার! চিন্তার কিছু নেই। প্রথম আলো আয়োজন করেছে এই বিশেষ ডিজিটাল মেলার। এ মেলা দেখতে তাই আপনাকে কোথাও যেতে হবে না। স্মার্টফোন বা কম্পিউটারে প্রথম আলোর ওয়েবসাইটে যেতে হবে। সেখানে গেলেই পাওয়া যাবে জমি, বাড়ি ও ফ্ল্যাটের বিশাল সমাহার। সেখান থেকেই আপনি বেছে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের ঘর, ফ্ল্যাট, জমি। সেখান থেকেই জেনে নিতে পারবেন দরকারি তথ্য। যাচাই-বাছাই করতে পারবেন দাম। দেখে নিতে পারবেন ঘরের বিস্তারিত। কথা বলতে পারবেন বিক্রেতার সঙ্গেও।

২৩ জানুয়ারি শুরু হয়েছে এই অনলাইন আবাসন মেলা। ‘ঘরে বসেই ঘর খুঁজুন’ শিরোনামের এ মেলায় দেশের সাতটি অঞ্চলের শীর্ষ ৪৫টি আবাসন প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, বরিশাল, কুমিল্লা ও বগুড়ার নানা আবাসন প্রকল্প মেলায় রয়েছে। বিভিন্ন স্থানের ৭ হাজার ফ্ল্যাট, সাড়ে ৩ লাখ কাঠা জমি, ১৫ লাখ বর্গফুট বাণিজ্যিক জায়গা রয়েছে বিক্রির জন্য। এই মেলা চলবে ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত। 

যেভাবে যাবেন মেলায়
অবাক হচ্ছেন, আবাসন মেলা তা–ও ভার্চ্যুয়াল! এ মেলায় কী দেখবেন? একবার ভাবুন তো ঘরে বসে এক ক্লিকে আপনার কতটা কষ্টের সমাধান হচ্ছে। সহজেই নির্ভরযোগ্য সূত্র থেকে কিনতে পারছেন পছন্দের ফ্ল্যাট-ঘর। এ জন্য প্রথম আলো অনলাইন (www.prothomalo.com) ঠিকানার ওয়েবসাইটে ঢুকে হলুদ–লাল রঙের ‘আবাসন মেলা’ বিভাগে ক্লিক করতে পারেন বা সরাসরি (https://service.prothomalo.com/abashonmela/) ঠিকানায় যেতে পারেন।

মেলার সাইটে স্টল, ফ্ল্যাট, জমি, বাণিজ্যিক ভবন ও সার্চ নামে মেনু রয়েছে। হোম পেজে এ মেনুর নিচেই আবাসন মেলার লোগো। এর ঠিক নিচেই আছে বিশেষ সার্চ সুবিধা। এখানে আপনার এলাকা, দাম কিংবা আকার অনুযায়ী ঘর ও জায়গা খুঁজে নিতে পারবেন। এতে আপনার জন্য সহজে তথ্য খুঁজে পাওয়া সহজ হবে। এর নিচে মেলার সহযোগীদের লোগো ও মেলাসংক্রান্ত তথ্য দেখতে পাবেন। তার নিচেই মেলার সব কটি স্টল। এসব স্টলে আপনি মেলার মতোই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ঘর, জায়গা বা বাড়ির তথ্য দেখে নিতে পারবেন। এখানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের এলাকাভিত্তিক তথ্য দেওয়া হয়েছে।

হোম পেজের নিচে রয়েছে ‘ঘরের খবর বাড়ির খবর’ নামের একটি অপশন। এখান থেকে অনলাইন আবাসন মেলার খবরের পাশাপাশি, আবাসন খাতের সব খবরাখবর, সাক্ষাৎকারসহ প্রথম আলোর বিভিন্ন খবর পড়তে পারবেন। 

কী আছে এই মেলায়?
সাইটের মেনু অপশন থেকেও ফ্ল্যাটে ক্লিক এলাকাভিত্তিক ফ্ল্যাটের তথ্য, ছবি, আয়তনসহ বিস্তারিত তথ্য জেনে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। এখান থেকেও নির্দিষ্ট বাড়ি খুঁজে নেওয়ার সুবিধা পাবেন। সাইটের বাঁ দিকে রয়েছে বিশেষ একটি চ্যাট বক্স। এখান থেকে সরাসরি চ্যাট করেও জেনে নিতে পারবেন আপনার প্রয়োজনীয় সব তথ্য। সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সরাসরি চ্যাট করে নানা তথ্য জানতে পারবেন এখান থেকে। এই আয়োজনের মাধ্যমে আগ্রহী ক্রেতারা প্রকল্পগুলোর বিস্তারিত দেখতে পারবেন। চাইলে অনলাইনেই প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন আগ্রহী ক্রেতারা।

২৩ জানুয়ারি রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে মেলার উদ্বোধন করা হয়। মেলা নিয়ে মেলার পৃষ্ঠপোষক বার্জারের প্রজেক্ট, প্রোলিংস ও ডেকোর বিভাগের প্রধান হাসানুজ্জামান বলেন, ভার্চ্যুয়াল আবাসন মেলা একটি নতুন ধারণা। প্রথম আলো সব সময়ই নতুন ধারণা সামনে নিয়ে আসে। তাঁর প্রত্যাশা, সামনের দিনগুলোতে এটি আবাসন খাত এবং এর সঙ্গে যাঁরা যুক্ত

আছেন, তাঁদের জন্য নতুন প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠবে।

মেলার স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব)। সংগঠনটির সহসভাপতি লিয়াকত আলী ভূঁইয়া বলেন, প্রথম আলো নতুন যে ধারণাটি নিয়ে এসেছে, সেটাকে সাধুবাদ। দেশের আবাসন খাতের সঙ্গে ২৫০টি শিল্প প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত। তাই আবাসন খাত ভালো থাকলে এই খাতগুলোও ভালো থাকবে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে রিহ্যাবের যে আবাসন মেলা হচ্ছে, সেখানেও এই ভার্চ্যুয়াল মেলা বড় ভূমিকা রাখবে।

বার্জার-প্রথম আলো আবাসন মেলার সহযোগী হিসেবে আরও আছে র‌্যানকন রিয়েল এস্টেট ডিভিশন, কনকর্ড গ্রুপ, ওরিয়ন গ্যাস, মেইলিওর ডেকো, আইডিএলসি ও মেরিন গ্রুপ। সম্প্রচার সহযোগী নাগরিক টিভি ও এবিসি রেডিও।

ছাড়ও আছে
মেলা থাকবে আর তাতে ছাড় থাকবে না, তা কি হয়? এই মেলাতেও বিভিন্ন ছাড় ও অফার নিয়ে হাজির হয়েছেন আবাসন ব্যবসায়ীরা। মেলায় আপনার পছন্দের ঘরের সঙ্গে ছাড় অফারের বিষয়টি জেনে নিতে পারেন। চাইলে ফ্ল্যাট বিক্রেতার সঙ্গে কথা বলে ভার্চ্যুয়াল ট্যুর করতেও পারেন। ভাবছেন ঋণ বা লোন কোথায় পাবেন? মেলায় সে তথ্যও রয়েছে। লোন ক্যালকুলেটর বসানো আছে। এ ছাড়া ঋণসংক্রান্ত তথ্যও মেলায় পাবেন।

মন্তব্য