আমাদের মেইল করুন dhunatnews@gmail.com
স্বপ্নের ফ্ল্যাট-প্লট খুঁজতে রিহ্যাব মেলায় উপচেপড়া ভিড়

রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পাঁচ দিনব্যাপী আবাসন মেলা সাপ্তাহিক ছুটির দিন শনিবার ক্রেতা-দর্শনার্থীর ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। মেলা প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, সকাল থেকে থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে মেলায় ভিড় জমাতে থাকেন ক্রেতা ও দর্শনার্থীরা।

তাদের ভিড়ে মেলায় অংশগ্রহণকারী কোম্পানিগুলোর প্রতিনিধিদের মধ্যে বেশ উৎসাহ মুখর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছিলো।

মেলায় স্বল্প আয়ের ক্রেতারা যেমন আসছেন একটু মাথা গোঁজার ঠাঁই পেতে,তেমনি উচ্চবিত্তরা আসছেন অর্থের নিরাপদ বিনিয়োগের আশায়। সরকারি চাকুরেরা মেলায় আসছেন সহজশর্তে ঋণ নিয়ে কোথাও একটু সুন্দর আবাস গড়তে পারেন তার সন্ধান জানতে। এভাবেই ছুটির দিন শনিবার আবাসন মেলায় ভিড় জমিয়েছেন ক্রেতা-দর্শনার্থীরা। মেলা শেষ হচ্ছে আগামীকাল রোববার।

মেলাতে এসে ছাদের নিচে ফ্ল্যাট, প্লট, নির্মাণ সামগ্রী ও অর্থায়ন বিষয়ে খোঁজখবর নেন ক্রেতারা। মেলা উপলক্ষে নানা ছাড় ও উপহার দিচ্ছে আবাসন কোম্পানি এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো। নিজেদের পছন্দমত ফ্ল্যাট ও প্লট খুঁজতে আগ্রহের সঙ্গে এসেছে মেলাতে। অনেকেই বুকিংও দিচ্ছেন। রাজনৈতিক পরিস্থিতি ভাল থাকার কারণে ক্রেতা ও মেলাতে অংশ নেওয়া প্রতিষ্ঠানের মধ্যে বেশ খুশি ভাব লক্ষ করা গেছে।

মেলা প্রাঙ্গণে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে। মেলায় অংশ নেওয়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিক্রয় কর্মীরা জানিয়েছেন, মেলায় ফ্ল্যাটের বুকিং দিলে বিশেষ মূল্য ছাড় রয়েছে। এলাকা ও প্রকল্পের ধরনের ওপর ছাড় নির্ভর করছে। মেলা থেকে নগদ লেনদেনে ১০ শতাংশ মূল্য ছাড় দিচ্ছে কোনো কোনো প্রতিষ্ঠান। রাজধানীর উত্তরা,বসুন্ধরা, মালিবাগ ও বনানীর পাঁচ প্রকল্পের ফ্ল্যাট ও বাণিজ্যিক স্পেস বিক্রিতে অফার রয়েছে।

মেলায় আসা আজিজ নামের এক দর্শনার্থী একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, এবার মেলার পরিবেশ অনেক ভাল। আমি মেলাতে এসে কিছু প্রতিষ্ঠানের সাথে কথাও বলেছি। আরো কিছু সময় দেখে পছন্দমতো ফ্ল্যাট-প্লট পেলে বুকিং দিয়ে যাবো। এক ছাদের মধ্যে আবাসন নিমার্ণের সকল প্রতিষ্ঠান থাকার কারণে মেলাতে আসা বলেও জানান তিনি। আলিম নামের আর এক দর্শনার্থী বলেন, মেলাতে ছোট আকারের ফ্ল্যাটের প্রতিই আমাদের মতো নিম্নআয়ের মানুষের আগ্রহ বেশি থাকে। যেহেতু সাধ্যের মধ্যে পরিকল্পনা তাই তিনি মিরপুর এলাকায় ফ্ল্যাট নিবেন।

মেলাতে নাভানা গ্রুপের কর্মকর্তা মমিনূল আজিজ একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, এবারের মেলাতে আমরা অনেক সাড়া পেয়েছি। অনেক ক্রেতারা ফ্ল্যাটের বুকিং দিয়েছে। মেলাতে আমরা তো ফ্ল্যাট বিক্রি করতে আসি না। তবে এবার অনেক সাড়া পেয়েছি মেলাতে থেকে।

মেলার সার্বিক বিষয় নিয়ে রিহ্যাবের ফেয়ার স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান শাকিল কামাল চৌধুরী একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, আগের আবাসন মেলায় ৯০০ থেকে ৯৫০ কোটি টাকা ফ্ল্যাট ও পল্গটের বুকিং পেয়েছেন তারা। পাশাপাশি প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার ফ্ল্যাট ও প্লট বিক্রির আশ্বাস এসেছিল। তিনি আশা করেন, এবারের মেলায় ক্রেতা-দর্শনার্থীদের কাছ থেকে আগের চেয়ে বেশি সাড়া পাচ্ছেন। প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ হাজার দর্শনার্থীরা মেলাতে আসছেন মেলায়। আবাসন প্রতিষ্ঠানগুলোর সম্পূর্ণ প্রস্তুত ও আধা প্রস্তুত ফ্ল্যাট ও প্লট বিক্রির অফার রয়েছে। সেখানে ৪০ লাখ থেকে শুরু করে তিন কোটি টাকার ফ্ল্যাট পাওয়া যাবে। এর মধ্য থেকে চাহিদামতো ফ্ল্যাট ও প্লট খুঁজে পাবেন ক্রেতারা।

মেলার আয়োজক রিহ্যাবের প্রথম সহসভাপতি লিয়াকত আলী ভূইয়া মিলন একুশে টিভি অনলাইনকে বলেন, এবার মেলায় ঢাকা, চট্টগ্রাম, সাভারে ৪০ লাখ থেকে শুরু করে ৩ কোটি টাকার ফ্ল্যাট আছে। প্রতিবারের মতো এবারও আবাসন প্রতিষ্ঠানগুলো সম্পূর্ণ প্রস্তুত ও আধা প্রস্তুত ফ্ল্যাট ও প্লট ক্রেতা-দর্শনার্থীদের সামনে উপস্থাপন করছে।

মেলাতে অভিজাত এলাকাগুলোয় ফ্ল্যাটের দাম কোটি টাকার ওপরে। তবে মধ্যবিত্তদের জন্য আছে মিরপুর, খিলগাঁও, গোপীবাগের মতো এলাকায় ফ্ল্যাট। কোম্পানিগুলো মধ্যবিত্তের জন্য ৫০ লাখের কমেও ফ্ল্যাট দিচ্ছে। এ ক্ষেত্রে ৯শ থেকে ১১শ বর্গফুটের ফ্ল্যাট রয়েছে। মিরপুর-১ নম্বরে চিড়িয়াখানা রোডে ৮শ থেকে ১১শ বর্গফুটের তাদের ফ্ল্যাটের দাম বর্গফুটপ্রতি ৩ হাজার ৬শ টাকা। পূর্ব কাফরুলের বর্গফুটপ্রতি ফ্ল্যাটের দাম ৫ হাজার টাকা। এ ছাড়া মাটিকাটায় ৬ হাজার টাকা প্রতি বর্গফুট মূল্যের ফ্ল্যাট মিলছে মেলায়।

মেলায় আসা বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো গৃহঋণের অফার দিচ্ছেন ক্রেতাদের। কে কত কম সুদে ও কত সহজ শর্তে ঋণ দিতে পারবেন, তাও জানা যাচ্ছে মেলায়। সরকারি হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স করপোরেশন ৮ থেকে ৯ শতাংশ হারে গৃহঋণ দিচ্ছে। মেলার আয়োজক রিহ্যাব জানিয়েছে,কাল রোববার শেষ হওয়া আবাসন মেলায় সকাল ১০ থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ক্রেতা দর্শনার্থীরা প্রবেশ করতে পারবেন। টিকিটের মূল্য ৫০ টাকা। মেলায় ২০২টি স্টল রয়েছে। আবাসন প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে এবার ২০টি বিল্ডিং ম্যাটেরিয়ালস ও ১৪ অর্থলগ্নিকারী প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। ২০০১ সাল থেকে ঢাকায় আবাসন মেলা করছে রিহ্যাব। একুশেটিভি

মন্তব্য