আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
ঘোষণা
আবাসন সম্পর্কিত যেকোনো নিউজ পাঠাতে পারেন আমাদের এই মেইলে- abasonbarta2016@gmail.com
ফ্ল্যাট কেনার আগে দেখে নিন রাজউকের অনুমোদন আছে কি না

ফ্ল্যাট কেনার আগে দেখতে হবে ভবনের নকশা রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) অনুমোদিত কি না। অনেকেই সারা জীবনের কষ্টের উপার্জনে ফ্ল্যাট কিনে থাকেন। তাই সতর্ক থাকা উচিত, যাতে বিনিয়োগটি ঝুঁকিতে না পড়ে।

বাড়ি, প্লট বা ফ্ল্যাট কেনার ক্ষেত্রে অনেকেই প্রলুব্ধ হয়ে তাড়াহুড়ো করে কেনার চুক্তিতে চলে যান। বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানটি সম্পর্কে ভালোভাবে খোঁজখবর নেন না। এটিই সবচেয়ে বড় ভুল। বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের জমির দলিলপত্র, চুক্তিপত্রগুলো একজন আইনজীবীকে দেখিয়ে বুকিং দেওয়া উচিত।

ফ্ল্যাট কেনার আগে অবশ্যই জেনে নিতে হবে ভবনের নকশা রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) অনুমোদিত কি না। অনুমোদন নেওয়া থাকলে নকশা অনুযায়ী ভবন তৈরি হয়েছে কি না, খোঁজ নিন। কারণ, নকশা অনুযায়ী ভবন তৈরি না হলে সেই ভবনের অবৈধ অংশ রাজউক যেকোনো সময় ভেঙে দিতে পারে। কোনো প্রকল্প রাজউকের অনুমোদিত কি না, তা সংস্থাটির ওয়েবসাইটে গিয়েও দেখা যায়। রাজধানীর ক্ষেত্রে যেমন রাজউক নকশা অনুমোদন করে, তেমনি চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ তাদের নিজ নিজ এলাকার প্রকল্পের অনুমোদন দিয়ে থাকে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আবাসন ব্যবসায়ীদের সংগঠন রিহ্যাবের সহসভাপতি লিয়াকত আলী ভূঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, ফ্ল্যাটের নকশা অনুমোদিত কিনা এসব জেনে ফ্ল্যাট ক্রয় মানুষের নাগরিক অধিকার। আমরা বারবার বলি দেখে কিনতে। এগুলো না দেখে বুঝে নিজের কষ্টের উপার্জন পানিতে ঢালবেন না।

রিহ্যাবের সহসভাপতি আরও বলেন, রিহ্যাবের সদস্যপদ ছাড়া কোনো প্রতিষ্ঠানের আবাসন ব্যবসা করা আইনসিদ্ধ নয়। তাই ক্রেতারা যে প্রতিষ্ঠান থেকে ফ্ল্যাট কিনবেন, সেটি রিহ্যাবের সদস্য কি না, তা দেখে নিতে হবে। তা ছাড়া, ফ্ল্যাট কেনার আগে চুক্তিপত্র ভালো করে দেখে নিতে হবে।

ফ্ল্যাট কিনতে হলে ক্রেতার অবশ্যই কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) থাকতে হবে। টিআইএন ছাড়া ফ্ল্যাট নিবন্ধন করা যাবে না। প্রথম আলো

মন্তব্য