আমাদের মেইল করুন abasonbarta2016@gmail.com
পূর্বাচল মেরিন সিটি: আধুনিক মডেল স্যাটেলাইট আবাসন প্রকল্প

‘পূর্বাচল মেরিন সিটি’ একটি মডেল স্যাটেলাইট আবাসন প্রকল্প, যা স্থানীয় ক্রেতা এবং প্রবাসী বাংলাদেশিদের আকর্ষণীয় আবাসিক প্লট দেওয়ার কাজে নিযুক্ত থেকে দেশজুড়ে সমাদৃত হয়েছে।

প্রকল্পটি খ্যাতনামা নগর–পরিকল্পনাকারী, স্থপতি এবং প্রকৌশলীদের একটি দল দ্বারা ডিজাইন করা হয়েছে। জীবনযাত্রার পরিবেশ উন্নত ও সুবিধাজনক করার জন্য আবাসিক এবং বাণিজ্যিক বিবেচনার একটি মিশ্রণ প্রস্তাবিত জনপদের সামগ্রিক বিন্যাসে রাখা হয়েছে।

‘পূর্বাচল মেরিন সিটি’ ধীরে ধীরে মেরিনার্সদের পাশাপাশি অন্য সব পেশার মানুষের দ্রুত বর্ধমান আবাসন চাহিদা পূরণের চ্যালেঞ্জ গ্রহণের মাধ্যমে সম্পূর্ণ নতুন একটি অধ্যায়ের সূচনা করেছে, যা বর্তমানে একটি সফল আবাসন প্রকল্প হিসেবে রূপ নিয়েছে।

পূর্বাচল মেরিন সিটি থেকে বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্তে যাতায়াতের সুবিধা থাকায় প্রতিনিয়ত গ্রাহকের ব্যবসা বা ব্যক্তিগত সমৃদ্ধি বৃদ্ধির সুযোগ প্রসারিত হবে। বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের অধিকাংশ মেগা প্রকল্প গড়ে উঠেছে পূর্বাচল মেরিন সিটি প্রকল্পের পাশ ঘিরে। এটি পূর্বাচল মেগা টাউনের ২১ ও ২২ ও ৩০ নম্বর সেক্টরের ঠিক মাঝামাঝি জায়গায় অবস্থিত।

প্রকল্পের বিশেষ সুবিধা

পানি, বিদ্যুৎ–সুবিধাসহ এখনই বাড়ি তৈরির উপযোগী রেডি প্লট। প্রকল্পটি লাল ও শক্ত মাটি দ্বারা আচ্ছাদিত বলে পাইলিংয়ের প্রয়োজন নেই। প্রকল্পের পাশেই নয়নাভিরাম জিন্দা ইকো পার্ক। পর্যাপ্ত মসজিদ এবং কবরস্থানের জন্য চিহ্নিত স্থান। থাকছে ২৫, ৩০, ৪০, ৬০ এবং ১০০ ফিটের প্রশস্ত সড়ক। রয়েছে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়সহ আন্তর্জাতিক মানসম্মত খেলার মাঠ ও জিমনেসিয়াম। থাকবে নামকরা হাসপাতাল, ক্লিনিক এবং প্রস্তাবিত আন্তর্জাতিক মানসম্মত মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।

লিফট, এস্কেলেটর, ফায়ার ফাইটিং সিস্টেম এবং প্রতিটি ব্লকের জন্য পৃথক গাড়ি পার্কিংসহ অত্যাধুনিক সুবিধাসংবলিত মাল্টিস্টোরিজ শপিংমল। লেক, আধুনিক বৈশিষ্ট্যযুক্ত চিলড্রেনস পার্ক। রাউন্ড দ্য ক্লক ফুল প্রুফ সুরক্ষাব্যবস্থা। আধুনিক কমিউনিটি সেন্টার, লেডিজ ক্লাব, থিয়েটার ও সিনেমা হল, বিনোদনমূলক উদ্যান এবং সুইমিংপুল। প্রথম আলো